×
Recipes

পটল আর ডিম দিয়ে বানিয়ে ফেলুন দুর্দান্ত স্বাদের পকোড়া, একবার খেলে বারবার খেতে ইচ্ছে করবে, রইলো রেসিপি

শীতকালে গরম চায়ের সঙ্গে একটা কিছু মুচমুচে হলে দারুণ লাগে। পটল আর ডিম দিয়ে কিন্তু চমৎকার মুচমুচে পকোড়া বানিয়ে নিতে পারেন। অনেক সময় আমরা যখন পকোড়া ভাজি তখন মুচমুচে থাকলেও পরে সেগুলো আর মুচমুচে থাকে না। আসুন দেখি পটল আর ডিমের পকোড়া কিভাবে বানালে ভাজার বেশ কিছুক্ষণ পরেও মুচমুচে থাকবে।

উপকরণ :

পটল
ডিম
কাঁচালঙ্কা
পেঁয়াজ
চিলি ফ্লেক্স
গোলমরিচের গুঁড়ো
হলুদগুঁড়ো
চাট মশলা
তেল
নুন
বেসন
চালের গুঁড়ো
খাওয়ার সোডা

প্রণালী :

স্টেপ ১:

পটল আর ডিম দিয়ে বানিয়ে ফেলুন দুর্দান্ত স্বাদের পকোড়া, একবার খেলে বারবার খেতে ইচ্ছে করবে, রইলো রেসিপি -

পটল আর ডিমের পকোড়া তৈরি করার জন্য প্রথমেই ৬ টা পটল ভালো করে ধুয়ে নিতে হবে। চেষ্টা করতে হবে যাতে নরম পটল নেওয়া যায়। শক্ত পটল হলে কাটার সময় বীজ বের করে দিতে হবে। পটলের দুদিক অল্প করে কেটে একটা পিলার বা ছুরির সাহায্যে পটলের গায়ে যে শক্ত খোসা আছে তা ছেঁচে নিতে হবে। পটলের খোসা পুরো ছাড়ানোর দরকার নেই। ছোট টুকরো বা ঝুরি ঝুরি করে যেভাবে আলুভাজার জন্য আলু কাটা হয় সেইভাবেই পটল কেটে নিন।

স্টেপ ২:

পটল আর ডিম দিয়ে বানিয়ে ফেলুন দুর্দান্ত স্বাদের পকোড়া, একবার খেলে বারবার খেতে ইচ্ছে করবে, রইলো রেসিপি -

এরসাথে ১ টা বড় সাইজের পেঁয়াজ কুচিয়ে, ৫-৬ টা কাঁচালঙ্কা কুচিয়ে, ১/২ চামচ চিলি ফ্লেক্স, ১/২ চামচ গোলমরিচের গুঁড়ো, অল্প হলুদগুঁড়ো, ১ চামচ চাট মশলা, স্বাদমতো নুন ভালোভাবে মিশিয়ে নিতে হবে। এর সঙ্গে ১ টা ডিম ভেঙে মিশিয়ে নিতে হবে। বাইন্ডিং এর জন্য ১/২ কাপ বেসন, ২ পিঞ্চ খাওয়ার সোডা, আর ১/৪ কাপ চালের গুঁড়ো মিশিয়ে নিতে হবে। এর ফলে একটা মুচমুচে ব্যাপার আসবে চাইলে চালের গুঁড়ো না দিয়ে ময়দা বা কর্ণফ্লাওয়ার দিয়েও বানিয়ে নেওয়া যায়। যদি আপনার মিশ্রণ পাতলা মনে হয় তাহলে প্রয়োজন অনুযায়ী বেসন যোগ করে দিতে হবে।

স্টেপ ৩:

পটল আর ডিম দিয়ে বানিয়ে ফেলুন দুর্দান্ত স্বাদের পকোড়া, একবার খেলে বারবার খেতে ইচ্ছে করবে, রইলো রেসিপি -

প্যানে বা কড়ায় তেল গরম করে হাতের সাহায্যে পকোড়া তেলে ছাড়তে হবে। যেভাবে পেঁয়াজি ভাজা হয় একদম সেইভাবেই এটাও ভাজাতে হবে। তেলে দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গে নাড়াচাড়া করা যাবে না। কিছুক্ষণ পরে যখন এর নিচের দিকটা ভাজা হয়ে যাবে তখন খুন সাবধানে এটা উল্টে দিতে হবে। এইভাবে সময় নিয়ে উল্টেপাল্টে বাদামি করে পকোড়া ভেজে নিতে হবে। একসঙ্গে বেশি পকোড়া কড়ায় না দেওয়াই ভালো কারণ এরকম করলে পকোড়াগুলো একটা অন্যটার সঙ্গে লেগে যাবে। তাই একসঙ্গে ৫-৬ টার বেশি পকোড়া কড়ায় না দেওয়াই ভালো হবে।

এইভাবে কয়েকবারে সমস্ত পকোড়া ভেজে নিন। পছন্দের সস বা চাটনি দিয়ে পরিবেশন করুন পটল ও ডিমের পকোড়া।

দেখে নিন ভিডিও-