×
Offbeat

আর নয় একঘেয়ে দীঘা পুরী! ছুটি নিয়ে অবশ্যই ঘুরে আসুন কলকাতার কাছের এই সমুদ্রতীরে

বাঙালির ছুটি কাটানোর লিস্টে দীপুদা থাকবেই। কি দীপুদা মানে বুঝলেন না? আরে ‘দীঘা-পুরী-দার্জিলিং’ -র কথা হচ্ছে। দুদিন ছুটি পেলেই দীঘা আবার তার থেকে একটু বেশি ছুটি পেলে পুরী অথবা দার্জিলিং। কিন্তু এসব অনেক হলো এই শীতের ছুটিতে নতুন কোনো জায়গায় গিয়ে দেখুন। চলতি সপ্তাহে কিন্তু মোট পাঁচদিন ছুটি আছে অফিস।

আর নয় একঘেয়ে দীঘা পুরী! ছুটি নিয়ে অবশ্যই ঘুরে আসুন কলকাতার কাছের এই সমুদ্রতীরে -

আর ভ্রমণ পিপাসুরা সেই ছুটি অবশ্যই উপভোগ করতে চাইছেন। আর চিন্তা নেই আমাদের প্রতিবেদন আপনাকে বাড়িতে বসে এমন জায়গার খোঁজ দেবে যা কল্পানারও বাইরে বলা যায়। কলকাতা থেকে ঢিল ছোড়া দূরত্বে অবস্থিত আজকের আমাদের এই পর্যটন স্থান। যারা সমুদ্র ভালোবাসেন কার্যত তারা এই জায়গা থেকে দূরে থাকতে পারবে না।

আর নয় একঘেয়ে দীঘা পুরী! ছুটি নিয়ে অবশ্যই ঘুরে আসুন কলকাতার কাছের এই সমুদ্রতীরে -

জায়গাটির নাম পূর্ব মেদিনীপুরের, ‘বগুরান জলপাই’। কলকাতা বা হাওড়া থেকে ট্রেনে গিয়ে কন্টাই স্টেশনে নামবেন। তারপরে সেখান থেকে টোটো ভাড়া করে ১০-১৫ মিনিট দূরেই রয়েছে বগুরান জলপাই। যেখানে সমুদ্রের সাথে আকাশ মিশেছে। সমুদ্রের ঢেউ আপনাকে হাতছানি দিয়ে ডাকবে বারংবার। চোখ জুড়ানো প্রাকৃতিক দৃশ্য, মনোরম আবহাওয়া, ঘন ঝাউবন, তাল গাছের সারি প্রভৃতি মিলিয়ে এই জায়গাতে রয়েছে ছবির মতো সৌন্দর্য।

আর নয় একঘেয়ে দীঘা পুরী! ছুটি নিয়ে অবশ্যই ঘুরে আসুন কলকাতার কাছের এই সমুদ্রতীরে -

‘নিরালা রিসর্ট’ আপনাকে রাত কাটাতে হবে কারণ এখনও পর্যন্ত একটাই রিসোর্ট তৈরী হয়েছে সেখানে। রিসর্টে ঘর ও কটেজ দুইয়ের‌ই ব্যবস্থা রয়েছে। ছাদে উঠলে সম্পূর্ণ সমুদ্র দেখতে পারবেন। আবার ২ মিনিট হাঁটলেই বিচে পৌঁছে যাওয়া যাবে। একান্তে দুজনে সময় কাটাতে পারবেন খুব সুন্দর। দুই রাত থাকার পরে আবার ধীরে ধীরে বাড়ি ফিরে আসবেন তবে সেই সময় আমাদের প্রতিবেদনকে নিশ্চয়ই ধন্যবাদ জানাবেন।