×
Offbeat

আর নয় একঘেয়ে দীঘা পুরী! অবশ্যই ঘুরে আসুন কলকাতা থেকে ঢিল ছোড়া দূরত্বের এই সমুদ্র সৈকতে

এই তো একদিন তারপরেই আবার একটা ছুটি পাবেন। তবে প্রজাতন্ত্র দিবস ও সরস্বতী পূজা একই দিনে পড়েছে এবার। মন নিশ্চয়ই খারাপ আপনার তা বলার অপেক্ষা রাখে না। সেই কারণেই আপনাদের প্রতিদিনের জীবন থেকে সামান্য অন্যরকম স্বাদ পেতে আজ কলকাতা থেকে কিছু দূরেই রাত কাটানোর জন্য দুর্দান্ত একটা জায়গার হদিশ নিয়ে হাজির হয়েছি।

আর নয় একঘেয়ে দীঘা পুরী! অবশ্যই ঘুরে আসুন কলকাতা থেকে ঢিল ছোড়া দূরত্বের এই সমুদ্র সৈকতে -

জায়গাটি সবারই হয়তো জানা ডায়মন্ড হারবার জেলার মৌসুনি আইল্যান্ড। কলকাতা থেকে মাত্র ১১০ কিমি দূরে অবস্থিত দুর্দান্ত এই জায়গাতে আপনি এক রাত কাটাতে পারবেন। এখানে তিনদিকে চেনাই নদী আর একদিকে সমুদ্র রয়েছে। এই জায়গায় আসল মজা হল টেন্ট বা তাঁবুতে রাত কাটানো। সম্পূর্ণ অন্য একধরণের অ্যাডভেঞ্চারের সাক্ষী থাকবেন আপনি।

আর নয় একঘেয়ে দীঘা পুরী! অবশ্যই ঘুরে আসুন কলকাতা থেকে ঢিল ছোড়া দূরত্বের এই সমুদ্র সৈকতে -

শিয়ালদা থেকে নামখানা লোকালে চেপে আপনাকে শেষ স্টেশনে নামতে হবে অর্থাৎ নামখানাতে। নামখানা থেকে ম্যাজিক ভ্যান ও ট্রেকার ধরে চেনাই নদীর কাছে যেতে হবে। দুর্গাপুর বাগডাঙা, হুজ্জুতি বা পাতিবুনিয়া নামের চারটি ঘাট আছে সেখানের যেকোনো একটির থেকে লঞ্চ নিয়ে নদী পার করতে হবে। ব্যাস তাহলেই আপনি পৌঁছে যাবেন মৌসুনি দ্বীপে।

আর নয় একঘেয়ে দীঘা পুরী! অবশ্যই ঘুরে আসুন কলকাতা থেকে ঢিল ছোড়া দূরত্বের এই সমুদ্র সৈকতে -

জনপ্রতি ৯০০-১৫০০ টাকা মাথাপিছু চার বেলা খাওয়া সমেত পেয়ে যাবেন এই টেন্ট। রাতে চাইলে আপনি সমুদ্রের ধারে বসে চিকেন কাবাব বানিয়ে অবশ্যই উপভোগ করতে পারেন। এখানে নির্জনতা ছাড়াও উপরি হিসেবে পাওয়া যাবে স্থানীয় মানুষের সহৃদয় ব্যবহার। কাঁকড়া কিংবা হাঁসের মাংস দিয়ে জমিয়ে ভুরিভোজ করতে পারবেন। একরাত নির্জনে মনের মানুষের সাথে উপভোগ করার জন্য এর থেকে ভালো জায়গা হয়তো হবে না।