Offbeat

আর নয় একঘেয়ে দীঘা-পুরী! ছুটি নিয়ে ঘুরে আসুন কাছের এই জায়গা থেকে

Advertisement

‘উটি’ তামিলনাড়ু রাজ্যের দুর্দান্ত প্রাকৃতিক দৃশ্য সমৃদ্ধ একটি জায়গা। দেখলে যেন চোখ দুটি জুড়িয়ে যায়। প্রতি বছর ৩০ লক্ষ মানুষ ভারতের দক্ষিনে ঘুরতে যান যার মধ্যে বেশিরভাগের গন্তব্য থাকে উটি। উত্তরে যেমন কাশ্মীর ঠিক দক্ষিনেও কিন্তু উটি আছে। স্বল্প খরচে ক্যানভাসের মতো আঁকা এই শহরে অন্তত একবার অবশ্যই যেতে হবে আপনাকে।

আর নয় একঘেয়ে দীঘা-পুরী! ছুটি নিয়ে ঘুরে আসুন কাছের এই জায়গা থেকে

কলকাতা থেকে উটি যেতে আপনি প্রথমেই সহজে চলে যান ব্যাঙ্গালোর। হ্যাঁ ব্যাঙ্গালোর শহর কর্ণাটক হলেও এখান থেকে যেতে সুবিধা হবে। ব্যাঙ্গালোর থেকে উটি প্রায় ২৬৫ কিমি। সেখানে গিয়ে একটা ভালো গাড়ি বুক করে নিয়ে ভোর রাতে বেরিয়ে পরুন উটির উদ্দেশ্যে। এর ফলে ব্যাঙ্গালোরের যে গায়ে ব্যথা করা ট্রাফিক সেটা এড়িয়ে চলতে পারবেন। অনলাইন তো আছেই সেটার মধ্যে দিয়ে হোটেল বুক করে রাখুন উটি পৌঁছেই নির্দিষ্ট হোটেলে ঢুকে যাবেন।

আর নয় একঘেয়ে দীঘা-পুরী! ছুটি নিয়ে ঘুরে আসুন কাছের এই জায়গা থেকে

যাওয়ার পথে ঐতিহাসিক শহর মাইসোর দেখতে পাবেন যা ভারতের দ্বিতীয় পরিছন্ন শহর নামেই পরিচিত এবং দেখলেই তার প্রমাণ পাওয়া যায়। বিখ্যাত মাইসোর প্যালেস, যেখানে থাকতেন টিপু সুলতান। তার সাথেই বান্দিপুর ন্যাশনাল পার্কের বুক চিরে রাস্তা চলে গেল উটির উদ্দেশ্যে। সেখানে এক পাল হরিণ কিংবা হাতির দল দেখা কোন বড়ো ব্যাপার নয়।

আর নয় একঘেয়ে দীঘা-পুরী! ছুটি নিয়ে ঘুরে আসুন কাছের এই জায়গা থেকে

তার পরেই পৌঁছে যাবেন তামিলনাড়ু রাজ্যের বিখ্যাত জায়গা উটি। ঘন পাইন গাছের বাগান, সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে প্রায় ২,২৫০ মি. উচ্চতায় সবুজ পাহারে ঘেরা সৌন্দর্য যা আপনাকে মুগ্ধ করতে বাধ্য। চা বাগান, পাহাড়ি লেক, পাহাড়ের ঢালে লোকালয়, ক্ষেত-খামার এসব কিছুই আছে সেখানে। ডিসেম্বর থেকে মার্চ মাস পর্যন্ত এই জায়গায় ঘোরার একদম মোক্ষম সময়। ডুড্ডাবেট্টা পিক, উটি লেক, সেন্টিনারি রোজ পার্ক, ওয়াক্স মিউজিয়াম এসব কিছুই আমাদের ক্যামেরা ও চোখের লেন্স সারাজীবন সেভ হয়ে থেকে যাবে।