×
Lifestyle

৬০ বছর বয়সের পরও গ্ল্যামার ও যৌবন ধরে রাখতে মেনে চলুন বাবা রামদেবের এই ৫টি টিপস

বয়স বেড়ে গেলে বিভিন্ন রোগ দেখা যায় আমাদের শরীরে। বার্ধক্য দেখা দেয়। কিন্তু বাবা রামদেব (Baba Ramdev) এই কথায় একদমই বিশ্বাস করেন না। সবসময় শরীরকে সুস্থ, স্বাভাবিক ও গ্ল্যামারাস (Glamourous) রাখতে পারবেন বাবা রামদেবের বলা কিছু উপায়ে। শরীরেও থাকবে না কোনো বয়সের ছাপ। বাবা রামদেব বলেছেন – ‘জীবন যাত্রা (Lifestyle) ও খাদ্যাভ্যাস (Diet) ঠিক রাখলেই নিজেকে সুস্থ রাখা যাবে ৬০ বছর বয়সেও’।

 

ADVERTISEMENT

বয়স ধরে রাখতে ও সুস্থ থাকতে বাবা রামদেবের এই পাঁচটি কথা মনে রাখতে হবে।

জল, প্রতীকী ছবি

১] সকালে ঘুম থেকে উঠে খালি পেটে জল পান করতে হবে। একটু গরম জল পান করলে সব থেকে ভালো হয়। তবে প্রথমে দিনেই বেশি জল পান করতে যাবেন না। অল্প পরিমান জল দিয়ে শুরু করুন। পরে একটু একটু করে বাড়াতে থাকুন। গরম জল ওজন কমায়, পেট পরিষ্কার রাখে ও কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণে রাখবে। সারাদিনেও প্রচুর পরিমানে জল খেতে হবে।

 

শরীরচর্চা, প্রতীকী ছবি

২] সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর অন্তত ৩০ মিনিট ব্যায়াম (Exercise) করতে হবে। সপ্তাহে ৫ দিন করলে ভালো হয়। তবে কার শরীরের জন্য কোন ব্যায়ামটি প্রয়োজন তা একজন বিশেষজ্ঞই বলতে পারবেন। তাই বিশেষজ্ঞর সঙ্গে কথা বলে তারপর শুরু করুন। নিয়ম করে প্রতিদিন হাঁটতেও পারেন এতেও শরীরের খুবই ভালো ব্যায়াম হয়।

 

লিকার চা, প্রতীকী ছবি

৩] সকালে নিয়ম করে প্রায় প্রত্যেকের চা খায়। বাবা রামদেব বলেছেন লিকার চা খাওয়া স্বাস্থ্যের পক্ষে  ভালো। তবে দুধ চা খাওয়া একেবারেই চলবে না। চিনিও স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকর তাই বাবা রামদেব সকলকেই চিনি খেতে বারণ করেছেন।

 

আমলা অ্যালোভেরা জুস, প্রতীকী ছবি

৪] প্রতিদিন আমলা ও এলোভেরার রস পান করতে বলেছেন বাবা রামদেব। এই দুটি জিনিসেই আছে প্রচুর ভিটামিন ও আন্টিঅক্সিডেন্ট যা শরীরকে খুবই ভালো রাখে। হালকা একটু গরম জলে এই রসটি তৈরী করে খেলেই ওজন ঠিক থাকবে, কোষ্ঠকাঠিন্য চলে যাবে।

 

শাক সবজি, প্রতীকী ছবি

৫] প্রচুর পরিমানে সবুজ শাকসবজি ও ফল খেতে হবে প্রতিদিন। এইগুলির মধ্যে ভিটামিন, ফাইবার, খনিজ পদার্থ থাকে। বাবা রামদেব বলেছেন সকালের খাবারে থাকুক ফল ও সবজি। দুপুরেও এই ধরণের খাবার খাওয়া যাবে। তবে রাতের খাবারে ফল রাখা চলবে না।