×
Lifestyle

ঘরের দেয়ালে ধরেছে নোনা? দূর করতে মেনে চলুন এই ঘরোয়া পদ্ধতি

একটা বাড়িতে অনেক দিন বসবাস করার পরে বাড়ির দেওয়ালে ড্যাম্প (Damp in Wall) ধরতে শুরু করে। এই স্যাঁতস্যাঁতে ভাব বা ড্যাম্পকে নোনা ধরা বলা হয়। দেওয়ালে নোনা ধরলে দেওয়াল দুর্বল হয়ে যায়। নোনা ধরা দেওয়াল দেখতেই ভাল লাগেনা। চলুন ড্যাম্প মেরামত করার ঘরোয়া পদ্ধতি দেখে নেওয়া যাক।

ঘরের দেয়ালে ধরেছে নোনা? দূর করতে মেনে চলুন এই ঘরোয়া পদ্ধতি -

১. বাড়িতে যথাযথ ভেন্টিলেশন ব্যবস্থার অভাবে দেওয়ালে ড্যাম্প ধরে। দরজা ও জানলা মুখোমুখি থাকলে বাড়ির দেওয়ালে সমান ভাবে রোদ ও হাওয়া লাগবে। বর্ষাকালে ভিজে পর্দা নিয়মিত বদলাতে হবে।

ঘরের দেয়ালে ধরেছে নোনা? দূর করতে মেনে চলুন এই ঘরোয়া পদ্ধতি -

২. বাড়িতে চুনকাম করালে নোনা ধরার সম্ভাবনা বেড়ে যায়। অ্যাক্রিলিক ইমালশন দিয়ে প্লাস্টিক পেন্ট করান। তবে একবার রঙ করিয়েই নোনা ধরার হাত থেকে মুক্তি পাওয়া যাবেনা। দুই এক বছর অন্তর একবার বাড়ি রঙ করানো খুব দরকার।

ঘরের দেয়ালে ধরেছে নোনা? দূর করতে মেনে চলুন এই ঘরোয়া পদ্ধতি -

৩. নোনা ধরলে বাড়ির কাঠামোর রিমডেলিং করান। পুরনো প্লাস্টার তুলে নতুন প্লাস্টার করতে হবে। এই প্লাস্টারে নোনা রেজিস্টেন্ট রাসায়নিক ব্যবহার করলে ভাল। অ্যান্টি ফাঙ্গাল সলিউশান লাগিয়ে নিয়ে রঙ করালে সুবিধা হবে। এটি নোনা ধরা প্রতিরোধ করে ও দেওয়ালকে মজবুত করে।

ঘরের দেয়ালে ধরেছে নোনা? দূর করতে মেনে চলুন এই ঘরোয়া পদ্ধতি -

৪. দেওয়ালে কাঠের ফ্রেম ব্যবহার করলে তা নোনা ধরা রোধ করতে সাহায্য করে। কাঠের ফ্রেমে আটকে দেয়ালে শীতলপাটি লাগান। এটা আর্দ্রতা শুষে নেবে, ফলে নোনা ধরবে না। কংক্রিটের দেওয়ালে ফলস কাঠের দেওয়াল লাগালে দেখতেও ভাল লাগে।

ঘরের দেয়ালে ধরেছে নোনা? দূর করতে মেনে চলুন এই ঘরোয়া পদ্ধতি -

৫. বাড়ি করার সময় কয়েকটি বিষয় খেয়াল রাখতে হবে। কংক্রিটের প্লাস্টার শুকোনোর পর তাকে নিয়মিত ভেজানো দরকার। প্লাস্টার হবার অন্তত ২০দিন পর তাতে রং করা উচিত। রং করবার আগে দেয়াল স্যান্ডপেপার দিয়ে ভালো করে ঘষে নিন। রং করার সময় রোলার ব্যবহার করলে নোনা কম লাগবে।