×
LifestyleRecipes

ময়দা মাখার সময় দিয়ে দিন এই জিনিসটি, লুচি হবে ফুলকো, নরম তুলতুলে ও ধবধবে সাদা

বাঙালি পরিবারে লুচি খেতে ভালোবাসেন না এমন মানুষ বোধহয় নেই। রবিবারের সকাল গুলোতে জলখাবরের মেনু মানেই অধিকাংশ বাড়িতে লুচি হয়ে থাকে। সঙ্গে সাদা আলুর তরকারি বা আলুর দম। তাহলে একেবারে জমে যায় আরকি। আর উৎসবের মরসুমে লুচির ডিমান্ড যে ঠিক কতখানি তা নিশ্চই কাউকে বলে দিতে হয়না।

ADVERTISEMENT

তবে, শুধুমাত্র বাঙালিরাই নয় অবাঙালিদের মধ্যে এই লুচি খাওয়ার চল আছে। যদিও তারা এই লুচিকে ‛পুরি’ নামে চেনেন। এছাড়াও পাশ্ববর্তী রাজ্য এই যেমন ধরুন ত্রিপুরা, আসাম, বিহার, ওড়িশা রাজ্যেও লুচির খুব জনপ্রিয়তা রয়েছে। আট থেকে আশি সকলের কাছেও জনপ্রিয় একটি খাবার হল এই লুচি। যার থেকে মুখ ফেরাতে পারেন না কেউই।

ছোলার ডাল হোক বা আলুর দম, মাংস হোক বা পায়েস সবকিছুর সঙ্গেই এটি যায়। তথ্য অনুযায়ী পাল যুগে রাজ্যে তিন প্রকারের লুচির প্রচলন ছিল। খাস্তা, সাপ্তা, পুরি। চক্রপানি দত্ত র রচিত ‛দ্রব্যগুন’ গ্রন্থে লুচির বর্ণনা পাওয়া যায়। তবে, লুচি খেতে সকলেই ভালোবাসলেও অনেকেই কিন্তু লুচি বানাতে রীতিমতো হিমসিম খায়। ময়দা ঠিক মতো মাখলেও লুচি ফুলকো হয় না অথবা দেখা যায় লুচি সাদা হয়না।

তবে, আজ আপনাদের দূর্দান্ত কয়েকটি ট্রিক বলবো যেগুলো অনুসরণ করে চললে আপনার হাতের বাননো লুচির ফ্যান হয়ে যাবে সকলেই। আর সেই জন্য আপনাকে লুচির তৈরির ময়দার মধ্যে সামান্য পরিমানে বেকিং পাউডার মিশিয়ে নিতে হবে। আর তাতে লুচি হয়ে উঠবে ফুলকো। এমনকি ময়দার মধ্যে যদি টক দই মিশিয়ে মাখা হয় তাহলে লুচি ফুলকো তো হবেই এমনকি নরম তুলতুলেও হবে।

এছাড়া ময়দা মাখার সময় একটু সময় নিয়ে মাখবেন। তাহলে দেখবেন লুচি বেশ ভালো হয়। লুচি বানাতে তেলেরও কিছু অবদান কিন্তু রয়েছে। ময়দা যে তেল দিয়ে মাখা হবে সেই তেল যদি হালকা গরম করে নেওয়া যায় তাহলে লুচি ভাজা মাত্রই ফুলে উঠবে। এমনকি ময়দা মাখার পর ৩০-৪০ মিনিটের জন্য রেস্টে রেখে দিলে সেই লুচি হবে একেবারে অমৃত। তাহলে কি আর চিন্তা কিসের? এবার এই ট্রিক গুলো ফলো করে বানিয়ে ফেলুন লুচি।