×
EntertainmentNewsTrending

ফের শোকের ছায়া অভিনয় জগতে, সৌমিত্রর পর মারা গেলেন জনপ্রিয় অভিনেতা!

2020 সালে আমরা বেশ কিছু মহান ব্যাক্তিদের হারিয়েছি। টলিউড ও বলিউডের বেশ কয়েকজন মহান অভিনেতা চিরজীবনের জন্য আমাদেরকে ছেড়ে চলে গেছেন। সেই রকমই একজন মহান অভিনেতা হলেন মনু মুখোপাধ্যায়।

6 ডিসেম্বর কলকাতায় সকাল 9:33 তে তিনি মৃত্যুবরণ করেন। বেশ কয়েক দিন ধরেই তিনি বয়স জনিত রোগ ও হার্টের সমস্যায় ভুগছিলেন। শেষ পর্যন্ত 90 বছর বয়সে আমাদের সবাইকে ছেড়ে চলে গেলেন এই মহান অভিনেতা।

ADVERTISEMENT

মনু মুখার্জী 1 মার্চ 1930 সালে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি অমরেন্দ্রনাথ মুখোপাধ্যায় এর পুত্র । তিনি কলকাতা থিয়েটারে অভিনয় এর সাথেও যুক্ত ছিলেন। এই বিশ্বের অন্যতম প্রাচীন অভিনেতা হলেন মনু মুখার্জী । বাংলা টেলিভিশনের তিনি সক্রিয়ভাবে প্রধান ও গৌণ ভূমিকা পালন করেছিলেন ।

তার প্রথম ছবিটি ছিল ”নীল আকাশের নীচে”। 1959 সালে এটি প্রথম প্রকাশিত হয়। তিনি সত্যজিৎ রায়ের ছবিতেও অভিনয় করেছিলেন। মৃণাল সেনের মৃগয়া, সত্যজিৎ রায়ের জয়বাবা ফেলুনাথ, সোনার খাঁচা, গণশত্রু ছাড়াও সাহেব, প্রতিদান, দাদার কীর্তি মতোন বাংলা ছবিতেও তিনি অভিনয় করেছেন। তিনি তবলা বাজাতে শিখেছিলেন বিখ্যাত তবলা প্লেয়ার কৃষ্ণ কুমার গাঙ্গুলী কাছ থেকে, যিনি নতুবাবা নামেও পরিচিত।

তিনি অল্প বয়সেই অভিনয় শুরু করেছিলেন এবং তার প্রথম চরিত্রটি ছিল প্রতিবেশী একটি ক্লাব নাটকে স্ত্রীর ভূমিকায় অভিনয় করা। তিনি 1957 সালে শ্রীরাঙ্গম থিয়েটারে (২০০১ সাল থেকে বিশ্বরূপ মুভি থিয়েটার নামে পরিচিত) যোগদান করেছিলেন। তিনি ষাটের দশকের শেষের দিক থেকে অন্যান্য বিখ্যাত থিয়েটার যেমন সরকিনা, সুজাতা সদন, মিনার্ভা, বিশ্বনাথ মঞ্চ, রাঙমহল এবং তারকা হিসাবে কাজ করেছিলেন।

তিনি বাংলা টেলিভিশনের বিভিন্ন সিরিয়ালেও অভিনয় করেছেন। জি বাংলায় ‘বয়েই গেল’ ও স্টার জলসায় ‘সংসার সুখী হয় রমনীর গুনে’ ধারাবাহিকেও তাকে অভিনয় করতে দেখা যায়। এই মহান অভিনেতার মৃত্যুর খবরে শোকাগ্রস্ত বাঙালি ও টলিউড।

ADVERTISEMENT

Related Articles