×
Entertainment

এইসব টেলিভিশন তারকারা বাস্তব জীবনে স্বামী-স্ত্রী

আজ আমাদের প্রতিবেদনে থাকবে ভরপুর লাভ স্টোরির গল্প। কিছু সেলেব জুটির প্রেমের গল্প আপনাদের শোনাবো। যা হয়তো আপনাদের জীবনকে প্রভাবিত করবে। সেই প্রেম থেকে আপনি নিজের মিল ও খুঁজে পেতে পারেন। তাহলে চলুন দেরি না করে মিষ্টি প্রেমের গল্প গুলো জেনে নিই।

আজ যে জুটিদের গল্প আপনাদের শোনাবো তারা দুজনেই টেলিভিশন জগতের ভীষণ পরিচিত মুখ। শ্রীময়ী সিরিয়ালের ডিংকা কে মনে রয়েছে? ডিংকার আসল নাম সপ্তর্ষি তার স্ত্রী হলো সোহিনী। সপ্তর্ষি এবং সোহিনীর বয়স ফারাক প্রায় 15 বছর, আর এই বয়সের ফারাক এজন্য তাদেরকে কম কথা শুনতে হয়নি। সোহিনীর মাধবী নাটকটি সপ্তর্ষি কাছ থেকে দেখেই প্রেমে পড়ে যায় সোহিনীর। সোহিনী সেনগুপ্ত একজন এস্টাবলিশ নাট্যকার। তার এই অসামান্য প্রতিভা পারমিতার একদিন অলীক সুখ এ বার বার প্রমাণ হয়েছে। কোথায় লেখা আছে স্বামীকে বয়সে বড় হতেই হবে? তাই কাউকে পাত্তা না দিয়ে দুজনে বেশ চুটিয়ে সংসার করছেন একসাথে।

ADVERTISEMENT

জি বাংলা চ্যানেলের সৌরভকে মনে আছে তো? আরে আমাদের সবার প্রিয় রামকৃষ্ণ। সৌরভ সাহা এতই ভালো একজন দক্ষ অভিনেতা যে মানুষের মন জয় করতে তার দু মিনিট ও সময় লাগেনি। রানী রাসমণি সিরিয়ালের প্রধান এবং অন্যতম আকর্ষণ হয়ে দাঁড়িয়েছে এই রামকৃষ্ণ। সিরিয়ালে যেমন দাদি সহজ-সরল দেখা যাচ্ছে বাস্তব জীবনে তিনি বেশ সহজ সরল একজন মানুষ। সৌরভ এবং সুস্মিতা “কে তুমি নন্দিনী” সিরিয়াল এ একসাথে কাজ করেন এবং সেখান থেকে তাদের প্রেম আর তারপর তারা দুজন একসঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধেন। বর্তমানে তাদের একটি সন্তান ও রয়েছে।

নবনীতা দাস এবং জিতু কে মনে পড়ছে? শুটিং সেটের ফ্লোর থেকেই তাদের প্রেম শুরু হয়। স্টার জলসা চ্যানেলে “অর্ধাঙ্গিনী” সিরিয়ালে তারা দুজন একসঙ্গে কাজ করেন। এরপর অবশ্য তারা একসঙ্গে অনেক কাজই করেছেন কিন্তু সেখান থেকেই তাদের প্রেমটা স্টার্ট হয়। দুজনে সাত পাকে বাঁধা পড়লেন 2019 সালের 6 মে।

ADVERTISEMENT

Related Articles