×
Entertainment

ঐন্দ্রিলার ভুয়ো মৃত্যুসংবাদে তোলপাড় সোশ্যাল মিডিয়া, ‘আরেকটু থাকতে দাও ওকে’, আর্জি সব্যসাচীর

‛আরেকটু থাকতে দাও ওকে। এসব লেখার অনেক সময় পাবে’। বয়ে আসা ভুয়ো পোস্টের হয়ে কাতর অনুরোধ সব্যসাচীর। বাংলা টেলিভিশন (Television) জগতের একজন জনপ্রিয় অভিনেত্রী হলেন ঐন্দ্রিলা শর্মা (Aindrila Sharma)। কালারর্স বাংলার ‘জিয়নকাঠি’ সিরিয়ালের জাহ্নবী হিসেবেই তাঁকে অধিকাংশ মানুষ চেনেন। অভিনয় দিয়েই সে জয় করেছে সকল দর্শকদের মন। তাঁর বেশ ফ্যান ফলোয়িংও রয়েছে।

ADVERTISEMENT

কম-বেশি সকলেই জানেন যে, তিনি ২০১৫ সালে ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়েছিলেন। এরপর কেমোথেরাপি চলার পর ২০১৬ সালে তিনি সুস্থ হয়ে ওঠেন। কিন্তু তার ৫ বছর পর ২০২১ সালে আবারও আক্রান্ত হয়েছিলেন মারণ রোগ ক্যান্সারে। অবশেষে সুস্থও হয়েছিলেন ফিরে এসেছিলেন স্বাভাবিক জীবনে। কিন্তু আচমকা আবারও ঘটে বিপত্তি। ১ নভেম্বর ব্রেন স্টোকে আক্রান্ত হন অভিনেত্রী। কোমায় চলে যান।

যদিও এরপরেও ধীরে ধীরে সুস্থ হওয়ার পথে এগোচ্ছিলেন ঐন্দ্রিলা। কিন্তু আচমকাই বুধবার সকালে পরপর দুবার হার্ট অ্যাটাক ঘটে। আর তারপর থেকেই ভুয়ো খবরে ভরে যায় সোশ্যাল মিডিয়া। ঐন্দ্রিলা শর্মা আর নেই। নিমেষেই RIP র বন্যায় ভরে যায় সোশ্যাল মিডিয়া। আর তারপর থেকেই চলে শোকপ্রকাশ। তবে, অনেকেই আবার ভুয়ো খবরে কান দেননি।

বরং বলেছেন যে, ঐন্দ্রিলার শারীরিক অবস্থা আশংকাজনক হলেও তিনি এখন বেঁচে আছেন। আর তারপরই ঐন্দ্রিলার প্রেমিক সব্যসাচী সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্ট করেন। কাতরভাবে লেখেন যে, ‛আরেকটু থাকতে দাও ওকে। এসব লেখার অনেক সময় পাবে’। এমনকি অভিনেতা অনিন্দ্য ক্ষোভ প্রকাশ করে লিখেছেন যে, ‛সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের বেলায় দেখেছিলাম মারা যাওয়ার দুদিন আগে ফেসবুকে মেরে ফেলেছিল। ওরা মরে না। আসলে আমরাই মরে গেছি অনেকদিন আগে’। বর্তমানে খুবই আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি ঐন্দ্রিলা। কিন্তু সকলেই অপেক্ষা করছে মিরাক্কেলের আশায়।