×
EntertainmentVideoViral Video

সিংহরায়দের সমস্ত সম্পত্তি ঈশার কাছে বিক্রি করলো রাহুল, বেজায় চটেছে দ্যুতি, নয়া ট্যুইষ্ট গাঁটছড়ায়

ফের বড়সড় ঝড়ের মুখে সিংহরায় পরিবার! বর্তমানে সেরার সেরা স্থানে নেই এই ধারাবাহিক। তবে, সেরা দশের জায়গায় নিজেকে টিকিয়ে রেখেছে বৈকি। আর তাইতো আবারও স্রোতে ফিরতে মরিয়া লড়াই চালাচ্ছে ‛গাঁটছড়া’ (Gantchhora)। একেরপর এক টুইস্ট আসতে চলেছে ধারাবাহিকে।

সিংহরায় পরিবারে সুখ এসেও ক্ষণস্থায়ী হয়না। সুখের সাগরে ভাসতে না ভাসতেই আবারও দুঃখ এসে হাজির হয়। বর্তমানে সিংহ রায় পরিবারের ছিন্নভিন্ন অবস্থা। আর তার একটাই কারণ সেটা হল খড়ির মৃত্যু। ধারাবাহিকের নিয়মিত দর্শকেরা জানেন যে, খড়ি ও ঋদ্ধি মিলে জঙ্গলে যায় অষ্টধাতুর মূর্তি খোঁজার জন্য। আর সেখানেই কয়েকজন তাদের উপর হামলা করে। আর তারপর নাকি খড়িকে বাঘে টেনে নিয়ে যায়।

আর তাতেই মৃত্যু হয় খড়ির। এরপর ধারাবাহিক লিপ নেয় ১ বছর। আর সেখানে দেখা যায় যে, বিদেশ থেকে একজন বড় ফ্যাশান ডিজাইনার আসে কলকাতায়। যাকে কিনা পুরো খড়ির মতো দেখতে। কিন্তু তার নাম ঈশা। এমনকি খড়ির লুকের সঙ্গে তার কোনো মিল নেই। সে যথেষ্ঠ মর্ডান। এমনকি তার পোশাকের রয়েছে সেই মর্ডানের ছোঁয়া। আর তার কলকাতায় আসার উদ্যেশ্যে সিংহ রায় জুয়েলার্সকে টিকতে না দেওয়া।

এককথায় খলনায়িকার চরিত্রেই দেখা মিলছে এই ঈশার। তবে, এরই মাঝে ধারাবাহিকে দেখা যাচ্ছে যে, রাহুল সিংহ রায় পরিবার বিক্রি করে দিচ্ছে। তাও আবার ঈশার কাছে। তবে, অবশেষে রাহুলের টাকাও হাতছাড়া হয়। তাও আবার ঈশার চক্রান্তে। আর এরই মাঝে দেখা যায় সিংহ রায় পরিবারে কোনো একটা খবর দিতে হাজির হয় বনি। আর সেখানে আসতেই কুণালের মা তাকে অপমান করে।

বনিকে জানায় কুনালকে ডিভোর্স দিয়ে দেওয়ার জন্য। পাল্টা বনি জানায় সে অনেক আগেই ডিভোর্সের কাগজে সই করে দিয়েছে। কিন্তু সেটা মানতে নারাজ কুণালের মা। তখন কুনাল জানায় যে বনি সত্যি বলছে। সেই এতদিন সই করেনি। অবশেষে বনির কথায় কুনাল ডিভোর্সের কাগজে সই করতে গেলে খড়ি রূপী ঈশা এসে সেই কাগজ ছিড়ে ফেলে। এবার দেখার পালা আগামী দিনে ‛গাঁটছড়া’ কোন দিকে মোড় নেয়।