×
Entertainment

‘একটা মানুষ কখনও ইন্ডাস্ট্রি হতে পারে না’, প্রসেনজিৎ কে খোঁচা দেবশ্রীর!

‛শুরুতে শুধরে দিই…একটা মানুষ ইন্ডাস্ট্রি হতে পারে না’! এক সাক্ষাৎকারে অকপট অভিনেত্রী দেবশ্রী রায়। নব্বইয়ের দশকের জনপ্রিয় অভিনেত্রীদের তালিকায় প্রথমেই উঠে আসে তার নাম। তবে, আশির দশকের শেষ থেকে পছন্দের জুটির তালিকায় রয়েছে তাদের নাম। ‛দেবীবরণ’ থেকে ‛উনিশে এপ্রিল’ সব ধারার ছবিতেই তারা ঝড় তুলেছিলেন বড়পর্দায়। তারা হলেন একসময়ের জনপ্রিয় জুটি প্রসেনজিৎ চ্যাটার্জি (Prasenjit Chatterjee) ও দেবশ্রী রায় (Debashree Roy)।

'একটা মানুষ কখনও ইন্ডাস্ট্রি হতে পারে না', প্রসেনজিৎ কে খোঁচা দেবশ্রীর! -

একসময় চুটিয়ে কাজ করেছেন বড় পর্দায়। পাশাপাশি রিয়েল লাইফেও এই জুটির জনপ্রিয়তা ছিল তুঙ্গে। ১৯৯২ সালে সাতপাকে বাঁধা পড়েন এই জুটি। যদিও বিয়ের পর দীর্ঘস্থায়ী হয়নি তাদের সংসার জীবন। মাত্র তিন বছরের মাথায় দূরত্ব তৈরি হয় তাদের মধ্যে। অবশেষে ভেঙে যায় তাদের সম্পর্ক। ১৯৯৫ সালে বিবাহ বিচ্ছেদের পথে হাঁটেন দুজনেই। তবু আজও টলিউডের অন্দরে কান পাতলে শোনা যায় তাপস পাল, প্রসেনজিৎ ও দেবশ্রীর বন্ধুত্বের গল্প।

'একটা মানুষ কখনও ইন্ডাস্ট্রি হতে পারে না', প্রসেনজিৎ কে খোঁচা দেবশ্রীর! -

কিন্তু প্রসেনজিৎ ও দেবশ্রীর বিবাহ বিচ্ছেদের পরই তাদের এই বন্ধুত্বে ছেদ পরে। এমনকি প্রসেনজিতের আত্মজীবনী ‛বুম্বা শট রেডি’ তে অভিনেতা তার, দেবশ্রী ও তাপস পালের (Tapas Paul) বন্ধুত্বের কথা লিখেছিলেন। এমনকি দেবশ্রীর সঙ্গে তার প্রথম প্রেম, বিয়ে সব নিয়েই খোলামেলা ভাবে লিখেছিলেন অভিনেতা। এরপর দেবশ্রী আর বিয়ে না করলেও প্রসেনজিৎ দ্বিতীয়বার আবদ্ধ হন বিয়ের বন্ধনে।

'একটা মানুষ কখনও ইন্ডাস্ট্রি হতে পারে না', প্রসেনজিৎ কে খোঁচা দেবশ্রীর! -

প্রভাবশালী ব্যবসায়ী পরিবারের মেয়ে অপর্ণা গুহঠাকুরতার (Aparna Guhathakurta) সঙ্গে বিয়ে সারেন অভিনেতা। তাদের একটি কন্যা সন্তানও রয়েছে। যার নাম প্রেরণা। বর্তমানে প্রসেনজিতের তৃতীয় স্ত্রী অর্পিতা ও সন্তান তৃষানজিৎকে নিয়ে বেশ সুখের সংসার অভিনেতার। এমনকি কিছুদিন আগেই শোনা গিয়েছিল যে অভিনেতা প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে সবটা মিটমাট করে নিতে চাইছেন। তবে, এরই মাঝে গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিল যে, দেবশ্রীর কাছে নাকি প্রসেনজিতের তরফে ছবির প্রস্তাব গিয়েছিল।

'একটা মানুষ কখনও ইন্ডাস্ট্রি হতে পারে না', প্রসেনজিৎ কে খোঁচা দেবশ্রীর! -

কিন্তু একথা কতটা সত্যি তা জানতেই এক জনপ্রিয় সংবাদমাধ্যম যোগাযোগ করেছিল দেবশ্রীর সঙ্গে। প্রথমেই তার কাছে প্রশ্ন রাখা হয় যে, ‛যে নায়ককে সারা বাংলা ইন্ডাস্ট্রি নামে চেনে, তার কাছ থেকে আপনার কাছে ছবি করার প্রস্তাব এসেছিল?’ এই উত্তরে প্রথমেই দেবশ্রী বলেন যে, ‛শুরুতে শুধরে দিই…একটা মানুষ ইন্ডাস্ট্রি হতে পারে না। বাংলা ছবির ইন্ডাস্ট্রি সবাইকে নিয়ে। আমি অভিনেত্রী। ভালো কাজ করতে চাই। আমার সহশিল্পী কে হবেন তা নিয়ে কোনো মাথাব্যথা নেই। এখন কিছু বলতে পারবো না’।

'একটা মানুষ কখনও ইন্ডাস্ট্রি হতে পারে না', প্রসেনজিৎ কে খোঁচা দেবশ্রীর! -

এরপরই অভিনেত্রী বলেন যে, ‛ইন্ডাস্ট্রি প্রসঙ্গে বলি, ‛ইন্ডাস্ট্রি একজনই ছিলেন উত্তম কুমার’। এমনকি কিছুদিন আগে কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবে প্রসেনজিৎ ও দেবশ্রীর বোনঝি তথা জনপ্রিয় বলি অভিনেত্রী রানী মুখার্জিকে একই ফ্রেমে দেখা গিয়েছিল। কিন্তু হাজির ছিলেন না দেবশ্রী। সেই প্রসঙ্গে অভিনেত্রী বলেন যে, ‛অনেক উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে গেছি। থালি গার্লও হয়েছি। সত্যজিৎ রায়ের পাশে দাঁড়িয়েছি। এখন আর এসবের দরকার নেই’। এমনকি বোনঝি কলকাতায় এলেও দুজনেরই ব্যস্ত শিডিউলের কারণে আর দেখা করা হয়ে ওঠেনি তাও জানান দেবশ্রী।

'একটা মানুষ কখনও ইন্ডাস্ট্রি হতে পারে না', প্রসেনজিৎ কে খোঁচা দেবশ্রীর! -

তবে, দিন কয়েক আগে এক সাক্ষাৎকারে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে ছোট পর্দার ‛সর্বজয়া’ জানিয়েছিলেন যে, ‛যোগ্য সম্মান না পাওয়ার জন্যই তিনি ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে উপস্থিত হন না’।