Entertainment

Anurager Chhowa: দীপাকে মারতে গিয়ে সূর্যকে ধাক্কা মারলো মিশকা, তারপর যা ঘটলো!তুমুল উত্তেজনা দর্শকমহলে

Advertisement

দীপাকে (Dipa) মারতে গিয়ে সূর্যর উপরই আঘাত হানলো মিশকা (Mishka)! সূর্য-দীপার (Surya-Dipa) একসঙ্গে থাকা, তাদের ছোট ছোট খুনসুটির মুহূর্ত এমনকি দুজনের একসঙ্গে মেয়েদের স্কুলে টিফিন নিয়ে আসা এইসব কিছুর কোনোটাই মেনে নিতে পারছে না মিশকা। সে মনে মনে রীতিমতো ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে কিভাবে দীপাকে সূর্যের জীবন থেকে সরিয়ে ফেলা যায়। আর সেইমতন মোক্ষম একটি প্ল্যানও বের করে ফেলে। টাকা দিয়ে একটি গাড়ি ও সঙ্গে একটি নেমপ্লেট কিনে নেয়।

Anurager Chhowa: দীপাকে মারতে গিয়ে সূর্যকে ধাক্কা মারলো মিশকা, তারপর যা ঘটলো!তুমুল উত্তেজনা দর্শকমহলে

আর তারপরই দীপাকে (Dipa) মারার জন্য নেমে পরে রাস্তায়। একেবারে পিছন দিক দিয়ে ধাক্কা দিয়ে দীপাকে মেরে ফেলতে চায়। কিন্তু ওই যে বলে না ভগবান না চাইলে তাকে কেউ মারতে পারেনা। আর সেইমতন তখনই সেখানে হাজির হয় সূর্য (Surya)। গাড়ির মুখের সামনে থেকে দীপাকে সে বাঁচিয়ে নেয়। আর সেই বাঁচাতে গিয়ে তার পায়ে খানিকটা চোট লাগে। অবশেষে সকলে মিলে তাকে ধরাধরি করে হাসপাতালে নিয়ে যায়।

Anurager Chhowa: দীপাকে মারতে গিয়ে সূর্যকে ধাক্কা মারলো মিশকা, তারপর যা ঘটলো!তুমুল উত্তেজনা দর্শকমহলে

ওদিকে অনেক রাত হয়ে গেলেও সোনা-রুপার (Sona-Rupa) কিছুতেই ঘুম আসেনা। তাদের মনের মধ্যে কেমন আনচান করতে থাকে। যদিও লাবন্য ও প্রবীর এসে তাদের ঘুম পাড়ানোর চেষ্টা করে। আর তারপরই লাবন্যর (Labonya) মনের ভিতরও কেমন অস্থিরতা কাজ করতে থাকে। আর সেইসময় দীপার ফোন আসে। সে জানায় যে, সূর্যের এক্সিডেন্ট হয়েছে। একথা শোনা মাত্রই লাবন্য ও প্রবীর (Labonya-Prabir) মিলে সোজা হাসপাতালে গিয়ে হাজির হয়। এমনকি সঙ্গে যায় জয় (Joy)।

Anurager Chhowa: দীপাকে মারতে গিয়ে সূর্যকে ধাক্কা মারলো মিশকা, তারপর যা ঘটলো!তুমুল উত্তেজনা দর্শকমহলে

ওদিকে মিশকা (Mishka) গিয়েও হাজির হয় হাসপাতালে। দীপা জানায় সেই গাড়িতে সে মিশকার এই শাড়ি দেখেছে। আর একথা শুনেই মিশকার দীপার কথার জালে তাকে ফাঁসানোর চেষ্টা করে। ওদিকে সূর্যও রীতিমতো বিরক্ত হতে থাকে। এরপর দীপা (Dipa) সবকথা লাবন্য ও প্রবীরকে খুলে বলে। আর তারপর লাবন্য পুলিশের কাছে ফোন করে এই এক্সিডেন্টের আসল রহস্য উদ্ধারের জন্য।

Anurager Chhowa: দীপাকে মারতে গিয়ে সূর্যকে ধাক্কা মারলো মিশকা, তারপর যা ঘটলো!তুমুল উত্তেজনা দর্শকমহলে

আর এসব দেখে তো মিশকার (Mishka) মুখ ভয়ে ছোট হয়ে যায়। সে রীতিমতো অস্থির হয়ে ওঠে। এখন শুধু দেখার পালা আগামী পর্বে মিশকার এই শয়তানি ফাঁস হয় নাকি! নাকি আবারও কোনোভাবে নিজের পিঠ বাঁচিয়ে নেয় মিশকা।