×
EntertainmentVideoViral Video

তিতিরকে কাছে পেতে ফুলঝুরিকে ডিভোর্স দিচ্ছে লালন! ‘ধুলোকনা একদম জঘন্য সিরিয়াল’, বলছে নেটিজেনরা

তবে, কি ডিভোর্সই লালন-ফুলঝুরির সম্পর্কের পরিণতি? সম্প্রতি প্রকাশ্যে আসা প্রোমো তেমনটাই জানান দিচ্ছে। এই মুহূর্তে টেলিভিশনের পর্দায় বেঙ্গল টপার ধারাবাহিক হল ‛ধূলোকনা’ (Dhulokona)। ৮.০ নম্বর নিয়ে প্রথম স্থান দখল করেছে এই ধারাবাহিক। কিন্তু সম্প্রতি লালনের পরকীয়া দেখে বেজায় চটেছেন নেটিজেনরা। তিতিরের প্রেমে পাগল হয়ে কিনা ফুলঝুরিকেই ডিভোর্স দিতে চলেছে।

ADVERTISEMENT

স্মৃতিশক্তি ফেরার পর থেকেই তার এই পাগলামির শুরু। কিছুতেই সে তিতিরকে ভুলতে পারছে না। ক্ষণে ক্ষণে তার তিতিরের প্রতি ভালোবাসা যেন উথলে পড়ছে। এমনকি ঠিক করেছে সপ্তাহের কটা দিন তিতিরদের বাড়ি গিয়ে থাকবে। এমনকি বিয়েবাড়ির মধ্যে ফুলঝুরি নয় বরং তিতিরকে বলছে কাছাকাছি থাকতে। আর এসব মেনে নিতে পারছেন না ‛ধূলোকনা’র অনুরাগীরা।

আর তাই সমস্ত রাগ উগরে দিচ্ছে গল্পের লেখিকা লীনা গঙ্গোপাধ্যায়ের উপর। লালনের এই বাড়াবাড়ি দেখে অনেকেরই বক্তব্য তাহলে ফুলঝুরিকে ছেড়ে লালন পাকাপাকি ভাবেই তিতিরের সঙ্গে থাকুক। প্রকাশ্যে আসা ওই প্রোমোতে দেখা যাচ্ছে যে, আইনজীবী তাদের প্রশ্ন করছে ‛ আর কোনোভাবেই কি একসঙ্গে থাকা সম্ভব না? আরেকবার ভেবে দেখবে নাকি? তবে, তাতে লালন ও ফুলঝুরি দুজনেরই মত তারা আর একসঙ্গে থাকতে চায়না’।

আর এরপরই তিতির এসে আইনজীবীর হাতে একটি খামে মোড়া কাগজ দেয়। আর জানায় এটি খুবই দরকারি কাগজ। এবার প্রশ্ন হলো কি আছে ওই কাগজে? কিন্তু সেটা তো বলবে সময়ই। তবে, লালনের এই দু নৌকায় পা দিয়ে চলা নিয়ে নেটিজেনরা একেরপর এক কমেন্টের বন্যায় ভরিয়েছেন কমেন্টবক্স। কেউ লিখেছেন যে, ‛যা হচ্ছে ভালোই হচ্ছে। লালনকে আর সহ্য করা যাচ্ছে না’। আবার কেউ লিখেছেন ‛জঘন্য সিরিয়াল’। সবমিলিয়ে এখন ‛পরকীয়া’ নিয়ে চর্চায় লালন-ফুলঝুরি র ‛ধূলোকনা’।