×
Entertainment

বোর্ড পরীক্ষার সময় বাবার মৃত্যু, সিনেমার গল্পকে হার মানাবে ‘জবা’ পল্লবীর জীবন কাহিনী

আজকালকার যুগে সোশ্যাল মিডিয়ায় মাধ্যমে একজন মানুষের জীবন সংগ্রামের কথা জানতে পারে গোটা পৃথিবীর মানুষ। আর তেমনই একটি প্ল্যাটফর্ম হল ‛জোশ Talk’। ইউটিউব এই চ্যানেলটির মাধ্যমে মানুষজন তাঁদের গল্প তুলে ধরে। আর যা দর্শকদের মাঝে ছড়িয়ে পরে। সম্প্রতি তেমনই জনপ্রিয় টেলিভিশন অভিনেত্রী পল্লবী শর্মা (Pallavi Sharma) তার জীবন সংগ্রামের কাহিনী তুলে ধরলেন এই মঞ্চে।

ADVERTISEMENT

ভিডিওর শুরুতেই পল্লবী জোশ Talk কে ধন্যবাদ জানায় এই মঞ্চে তাকে ডাকার জন্য। এরপরই পল্লবী তার জীবন সংগ্রামের কাহিনী তুলে ধরতে থাকেন। প্রথমেই পল্লবী বলেন সকলে তাকে অভিনেত্রী হিসেবে চিনলেও সে কোথা থেকে এসেছে সেসব ব্যাপারে অনেকেই জানেন না। কেননা, তিনি এসব ব্যাপারে কথা বলতে একদম ভালোবাসেন না। কিন্তু কেন বাসেন না সেকথা জানা যাবে এই মঞ্চেই।

এরপরই পল্লবী জানায় যে, তৃতীয় শ্রেণীতে পড়াকালীন তিনি জানতে পারেন যে, তার মায়ের ব্রেন টিউমার হয়েছে। যথারীতি তার চেয়ে সাতবছরের বড় দাদাকে নিয়ে তার বাবা চেন্নাই যান। আর তাকে রেখে যান পাড়ার এক পিসির কাছে। তারপর নানান জায়গায় চিকিৎসা চললেও তার মা আর সুস্থ হননি। পল্লবী ক্লাস ফাইভে পড়াকালীন তার মা মারা যান। যদিও এরপরেও তার জীবন এগোচ্ছিল নিজের ছন্দেই।

যে পিসির কাছে পল্লবী থাকতেন তিনি কোনোভাবে ইন্ডাস্ট্রির সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। এরপর একটি পার্টিতে পল্লবীর সঙ্গে এক ডিরেক্টররের আলাপ হয়। তারপর সানন্দা টিভির পর্দায় ‛নদের নিমাই’ ধারাবাহিকে কাজ করেন পল্লবী। ১৫ দিনের কাজ ৩ মাস ধরেন করেন। এরপর সিরিয়াল ছেড়ে পড়াশোনার দিকেই মন দেন। কিন্তু তারপরেও দুঃসময় তার পিছন ছাড়েনি। আইসিএসসি পরীক্ষার সকালে তার বাবা মারা যায়।

এরপরেও তিনি হাল ছাড়েননি। অনেকেই তাকে পরীক্ষা দিতে যেতে বারণ করেছিলেন। কিন্তু তিনি তাও পরীক্ষা দেন। এরপর ফিরে এসে বাবার দাহ করতে যান। বাপ-মা হারা মেয়েকে সেইসময় সকলেই চেয়েছিলেন বিয়ে দিয়ে দিতে। কিন্তু ভাগ্যের সহায়তায় একটি কাজের অফার আসে পল্লবীর হাতে। ‛দুই পৃথিবী’ নামের একটি সিরিয়ালে সে কাজের অফার পায়। যদিও এই ভাবে সে পড়াশোনা থেকে পিছিয়ে যেতে থাকে।

তারপর সে নিজেই ঠিক করে সে সিরিয়াল নয় বরং নিজের পড়াশোনা শেষ করবে। আর সেইমতো বাড়ির অন্যান্য সকলের কাছে সেই প্রস্তাব রাখে। যদিও তাতে কেউ রাজি হয়না। বরং সবাই বলে হয় বিয়ে করো নয়তো কাজ। সেইসময় পল্লবী সকলের কাছে থেকে মাত্র ২ বছর চেয়ে নেয়। এরপর ২০১৬ সালে স্টার জলসার পর্দায় ‛কে আপন কে পর’ ধারাবাহিকে জবা নামের একটি চরিত্র করে তুমুল জনপ্রিয়তা অর্জন করেন।

বর্তমানে সে নিজের ফ্ল্যাটেই থাকেন। নিজের মতোন করে জীবনটাকে উপভোগ করছেন।