×
Entertainment

নিজের সম্মান বাঁচাতে চাকরি করার সিদ্ধান্ত নিল পর্না, সমাজের বাস্তব চিত্র তুলে ধরছে এই সিরিয়াল, মুগ্ধ দর্শকরা

শ্বশুর বাড়ির শিকল পেরিয়ে চাকরি করার পথে পর্ণা! চোখ ছানাবড়া শাশুড়ি সহ বাকি সকলের। বর্তমানে জি বাংলার পর্দায় জনপ্রিয় ধারাবাহিক গুলির মধ্যে একটি হল ‛নিম ফুলের মধু’ (Neem Phooler Madhu)। গত বছরের ১৪ নভেম্বর থেকে রাত ৮ টার স্লটে দেখানো হচ্ছে এই ধারাবাহিক। সৌমিতৃষাকে (Soumitrisha Kundu) সরিয়ে পল্লবী শর্মাকে (Pallavi Sharma) জায়গা করে দিয়েছে চ্যানেল কতৃপক্ষ।

এমনকি অল্প সময়ের মধ্যেই দর্শকদের বেশ কাছের হয়ে উঠেছে ধারাবাহিক। মুখ্য চরিত্রে রয়েছেন ‛কে আপন কে পর’ খ্যাত অভিনেত্রী পল্লবী শর্মা (Pallavi Sharma)। আর অন্যদিকে রয়েছেন ‛যমুনা ঢাকি’ খ্যাত অভিনেতা রুবেল দাস (Rubel Das)। এই ধারাবাহিকের হাত ধরে নতুন এক জুটিকে টিভির পর্দায় দেখতে পাচ্ছেন দর্শকেরা। আর এই সিরিয়ালে মাঝে মধ্যেই উঠে আসে বাস্তবিক চিত্র।

নিজের সম্মান বাঁচাতে চাকরি করার সিদ্ধান্ত নিল পর্না, সমাজের বাস্তব চিত্র তুলে ধরছে এই সিরিয়াল, মুগ্ধ দর্শকরা -

কখনও আবার কিছু ক্লিপের কারণে ট্রোলও হতে হয় ধারাবাহিককে। তবে, সেই জায়গায় দাঁড়িয়ে অনেকেই আবার মনে করেন যে, আমাদের সমাজের নগ্ন চিত্রটাই উঠে আসছে এই সিরিয়ালের হাত ধরে। ধারাবাহিকের নিয়মিত দর্শকেরা জানেন যে, বিয়ে করে শশুর বাড়িতে আসার পর থেকেই শশুর বাড়ির কিছু সদস্য পর্নার পায়ে শিকল পরানোর চেষ্টা করছে।

যদিও পর্নাও হাল ছাড়ার পাত্রী নয়। সেও পুরোদমে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে পুরোনো ধ্যান ধারণা ভাঙার। তারই মধ্যে কাজের মেয়ে মঙ্গলাকে সাহায্য করতে গিয়ে নিজের হাতের আংটি খুলে দেয় পর্ণা। আর তাতে সৃজন সহ তার মা ও বাড়ির কিছু সদস্যের কাছে তাকে কম কথা শুনতে হয়নি। যদিও পর্ণার শশুর ও ঠাম্মি তার পক্ষেই ছিল। কিন্তু তাতে কি? বাকি সকলের বক্তব্য পর্ণা অন্যায় করেছে তাই তাকেই সেই আংটি ফিরিয়ে আনতে হবে।

আর তখনই পর্ণা বুঝতে পারে তাকে নিজের সম্মান বাঁচাতে হলে যে করেই হোক উপার্জন করতে হবে। আর এসবের মাঝেই প্রকাশ্যে এসেছে ধারাবাহিকের একটি ভিডিও ক্লিপ। যেখানে দেখা যাচ্ছে যে, পর্ণা সকাল সকাল কোথাও বেরোচ্ছে। আর তারজন্য শশুর মশাইকে জানাতে এসেছে। যদিও এতে শশুর মশাই আপত্তি না করলেও জ্যাঠা শশুর জানতে চায় সে কোথায় যাচ্ছে?


এমনকি এরই মধ্যে এসে হাজির পর্ণার শাশুড়িও। সেও একই প্রশ্ন তোলা। আর তখনই পর্ণা জানায় যে, সে একটি চাকরির ইন্টারভিউ দিতে যাচ্ছে। আর এই শুনে তো চক্ষু ছানাবড়া পর্ণার শাশুড়ির। এবার দেখার পালা আদেও কি পর্ণা চাকরি করতে পারে। নাকি আবারও নতুন কোনো সমস্যা এসে হাজির হয়। এই পর্ব দেখে নেটিজেনদের অনেকেই দাবি করেছেন যে, পর্ণার মতো সমাজের প্রত্যেকটি মেয়ের নিজের পায়ে দাঁড়ানো উচিত। আর এই সিরিয়াল তারই ইঙ্গিত দিচ্ছে। এবার দেখার পালা পর্ণা নিজে স্বাবলম্বী হতে পারে নাকি!