Advertisement
EntertainmentViral Video

ঠাকুমার ভালোবাসা পেতে ঐন্দ্রিলাকে নিয়ে দুর্গাপুরে অঙ্কুশ, খাবার খেলেন মনভরে, দেখে মুগ্ধ নেটিজেনরা

Advertisement
Advertisements

কথা রাখলেন অঙ্কুশ-ঐন্দ্রিলা (Ankush-Oindrila)। ‛ঠাকুমার আদর’ প্রতিযোগিতায় যারা জিতবেন তাদের বাড়িতে অঙ্কুশ-ঐন্দ্রিলা ও তাদের টিমের সদস্যরা যাবেন। এমনকি দেখা করবেন তাদের পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে। এমনই কথা ছিল। আর সেই কথা রাখতেই রবিবার ‛ঠাকুমার আদর’ প্রতিযোগিতায় বিজয়ী প্রতিযোগী শুভ্রনীলের বাড়ি পৌঁছালেন অঙ্কুশ-ঐন্দ্রিলা। ৬ ঘন্টা জার্নি করে তারা পৌঁছেছিলেন দুর্গাপুরে।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Dipu (@ankush.official)

Advertisements

শুভ্রনীলের বাড়ি পৌঁছানো মাত্রই শঙ্খ বাজিয়ে তাদের স্বাগত জানানো হয়। এমনকি শুভ্রনীলের ঠাকুমা তো অঙ্কুশ-ঐন্দ্রিলাকে পেয়ে ভীষণ খুশি হন। এমনকি হাত দিয়ে চুমুও খান ঐন্দ্রিলার গালে। আর সেই দেখে তো বায়না জুড়ে দেয় অঙ্কুশ। এদিন খাওয়া-দাওয়া থেকে দেদার আড্ডা চলে শুভ্রনীলের বাড়িতে।

Advertisements

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Dipu (@ankush.official)

এদিন অঙ্কুশ ও ঐন্দ্রিলা আসবে শুনে শুভ্রনীলের বাড়ির লোকজন একেবারে না ঘুমিয়ে রান্নায় লেগে পড়েন। ভোর ৪ টে থেকে শুরু হয় রান্না বান্না। ফ্রায়েড রাইস, মাটন, চাটনি, ফ্রুট স্যালাড একেবারে পঞ্চব্যঞ্জনে সাজিয়ে দেওয়া হয় তাঁদের। অঙ্কুশও একেবারে লক্ষী ছেলের মতো একেরপর এক পদ চেখে দেখেন। এমনকি ঐন্দ্রিলাও তাদের রান্নার প্রশংসা করেন। বলেন যে, খুব ভালো রান্না হয়েছে। তেল, ঝাল নেই শরীরে কোনো অস্বস্তি হচ্ছে না।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Dipu (@ankush.official)

যদিও এদিন ফ্রুট স্যালাড একেবারে নামমাত্র চেখে দেখেন ঐন্দ্রিলা। তার বক্তব্য রোজ তো এটার উপরেই থাকি। এই খাওয়া দাওয়ার মাঝেই একজন বলেন অঙ্কুশ দা বলেই সব খাবার খেয়েছে। অন্য কেউ হলে ছুঁয়েও দেখতো না। তারপরই অঙ্কুশ বলেন এটাকে অন্যভাবে নেবেন না। ও বলতে চাইছে অঙ্কুশ দা খুবই ভালো মনের মানুষ।

ঠাকুমার ভালোবাসা পেতে ঐন্দ্রিলাকে নিয়ে দুর্গাপুরে অঙ্কুশ, খাবার খেলেন মনভরে, দেখে মুগ্ধ নেটিজেনরা

এমনকি এদিন যাওয়ার পথে নিজের ছোটবেলার বন্ধুর দোকান থেকেও লস্যি খেতে দেখা যায় অঙ্কুশকে। এমনকি শুভ্রনীলের বাড়ি থেকে বেরোনোর পথে ভক্তদের সঙ্গে ছবি তোলেন অভিনেতা। সবশেষে সবাইকে লাভ ম্যারেজ দেখতে যাওয়ার কথাও বলেন।