×
Entertainment

যে কারণে এক যুগ মুখ দেখাদেখি বন্ধ রানী-ঐশ্বর্যর, জানলে অবাক হবেন!

কয়েকদিন আগেই ৪৭ এ পা দিয়েছেন বলিউডের অন্যতম সুন্দরী লেডি ঐশ্বর্য রাই বচ্চন। তবে, তাঁর এই সৌন্দর্যে এখনও ঘায়েল ৮ থেকে ৮০সকলে। অভিনয় থেকে রিয়েল লাইফ সবসময়ই গসিপের শীর্ষে থাকে এই বলি সুন্দরী তথা বচ্চন ঘরনি।

অন্যদিকে বলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেত্রীদের মধ্যে একজন হলেন রানী মুখার্জি। একসময় একের পর এক হিট ছবি দর্শকদের উপহার দিয়েছেন। কিছুদিন আগেও তিনি ‘হিচকি’ ছবির মাধ্যমে আরও জনপ্রিয়তা পান।

ADVERTISEMENT

বলতে গেলে দুজনেই প্রায় একই সময় নিজেদের কেরিয়ার শুরু করেছিলেন বলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে। ঐশ্বর্য রাই এবং রানী মুখার্জি শুরুতেই এই দুজনের মধ্যে ভালো সম্পর্ক থাকলেও কয়েকবছর তাঁদের মুখ দেখাদেখি বন্ধ। দুজনের কেউই নিজেদের বিয়েতে একে অপরকে নিমন্ত্রণ করেননি। রানী ও ঐশ্বর্যর এই বিবাদের পিছনে রয়েছে প্রেমঘটিত ব্যাপার। অর্থাৎ একজনের প্রেমিককে অন্যজন ছিনিয়ে নেওয়ার মতো ঘটনা।

১৯৯৭ সালে রাজা কি আয়ে রি বারাত ছবিটির মধ্যদিয়ে বলিউডে অভিষেক হয় রানী মুখার্জীর। অন্যদিকে দিকে একই বছর অর প্যায়ার হো গায়া ছবি দিয়ে অভিষেক হয় বিশ্বসুন্দরী ঐশ্বর্যরও। তবে, দুজনেরই প্রথম ছবি হিট হয়নি। কিন্তু, রানীর অভিনয় দক্ষতা নজর কাড়ে পরিচালক তথা প্রযোজকদের। এছাড়া আমির খানেরও নজর কাড়ে রানীর অভিনয়। এরপর তাকে আমির খানই গোলাম ছবিতে অভিনয়ের জন্য অফার দেন। এরপর ১৯৯৮ সালে গোলাম ছবি সুপারহিট হয়।

অন্যদিকে ঐশ্বর্যর কাছেও আসতে থাকার ছবির অফার। তার নীল চোখ ও মিষ্টি হাসিতে তোলপাড় বলিউড। সালমানের সঙ্গে তখন ঐশ্বর্য চুটিয়ে প্রেম করছেন। তাদের অভিনীত হাম দিল দে চুকে সানাম তখন সুপার ডুপার হিট। রিল এবং রিয়েল দুক্ষেত্রেই সালমান এবং ঐশ্বর্য জুটি তখন কাঁপিয়ে বেড়াচ্ছে। এরপর ২০০৩ সালে চালতে চালতে ছবিতে শাহরুখ খানের বিপরীতে কাস্ট করা হয় ঐশ্বর্যকে।

কিন্তু সেই সময় সালমান খানের সঙ্গে ঐশ্বর্যর সম্পর্কে টালমাটাল চলছিল। সালমান খান সন্দেহ করতো যে ঐশ্বর্যর সবার সঙ্গে সম্পর্ক রয়েছে। আর সেই নিয়ে সিনেমার সেটে ঝামেলাও হয়। আর তাই শাহরুখ কোনো ঝামেলা যাতে না হয় তাই সেই সময় ঐশ্বর্যকে বাদ দিয়ে রানীকে কাস্ট করেন। সেই নিয়ে বেশ মন কষাকষি হয়েছিল। আর ঝামেলার সূত্রপাত সেখান থেকেই। তবে, এই নিয়ে কিন্তু ঐশ্বর্য আর রানীর মুখ দেখাদেখি বন্ধ নয়। তার পিছনে রয়েছে আরও এক কারণ।

সেইসময় রানী মুখার্জীর অভিষেক বচ্চনের সঙ্গে সম্পর্ক ছিল। কিন্তু সালমানের সঙ্গে ঐশ্বর্যর বিচ্ছেদের পর বলিউডের আকাশে ভেসে বেড়ায় ঐশ্বর্য ও অভিষেকের প্রেমের সম্পর্ক। আর রানীও সেটাই মনে করতেন। অবশেষে রানীর ভাবনাই সত্যি হয়ে ঐশ্বর্যর গলায়ই মালা দেন অভিষেক। তাঁদের বিয়েতে গোটা বলিউড আমন্ত্রিত থাকলেও রানী আমন্ত্রিত ছিলেন নাই। সবাই মনে করতে একমাত্র ঐশ্বর্যর কারণেই ভেঙে গিয়েছিল বান্টি অর বাবলি জুটি।

তবে, রানী মুখার্জিও ছাড়বার পাত্রী নয়। তাই তিনি বলিউডের সবচেয়ে বড় প্রোডাকশন যশ রাজ এর কর্ণধার আদিত্য চোপড়াকে বিয়ে করেন। আর সেখানেও তিনি ঐশ্বর্যকে আমন্ত্রণ করেননি। কেউ কারও মুখও দেখেন না। দীর্ঘ ১২ বছর ধরে এভাবেই একে অপরের মধ্যে চলে আসছে ঠান্ডা লড়াই।

ADVERTISEMENT

Related Articles