×
EntertainmentVideoViral Video

কপালে চন্দন লাগিয়ে, পায়ে চুমু দিয়ে প্রিয়তমা ঐন্দ্রিলাকে বিদায় সব্যসাচীর, ভিডিও দেখে চোখে জল নেটিজেনদের

পায়ে চুমু ও কপালে চন্দন! রানীর বেশে প্রিয়তমাকে পরম যত্নে বিদায় জানালেন প্রেমিক সব্যসাচী। দিনটা ‛ব্ল্যাক ডে’ হিসেবেই থেকে যাবে সকলের মনে। সকলের এত প্রার্থনা, ডাক্তারদের এতো চেষ্টা সবই যেন বৃথা হয়ে গেল। টানা ১৯ দিনের লড়াই শেষে ২০ দিনের মাথায় না ফেরার দেশে পাড়ি দেন অভিনেত্রী। হাওড়ার একটি বেসরকারি হাসপাতালে দুপুর ১২ টা ৫৯ মিনিট নাগাদ তার মৃত্যু হয়।

ADVERTISEMENT

প্রতিটা লড়াইয়ে তার পাশে ছিলেন তার পরিবার। আর যার কথা না বললেই নয় তিনি হলেন ঐন্দ্রিলার প্রেমিক সব্যসাচী। একজন যথার্থ প্রেমিকের উদাহরন তিনি। একটা মুহূর্তের জন্যও কাছছাড়া হননি ঐন্দ্রিলার। ভুলে গিয়েছিলেন বাড়ি-ঘর, কাজ। ঠাঁই বসে থেকেছেন প্রেমিকার মাথার কাছে। খালি একটাই আশা। আর সেটি হল তার রাজরানী কে সুস্থ করে বাড়ি ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়া।

তবে, ভগবান হয়তো তেমনটা চাননি। আর তাইতো ঐন্দ্রিলা আজ তার সব্যর থেকে এতো দূরে। বাস্তবে তারা একে অপরের অনেক দূরে হলেও মানসিক দিক দিয়ে ঐন্দ্রিলা সব্যসাচীর মধ্যেই বেঁচে থাকবেন। খাঁটি ভালোবাসার দৃষ্টান্ত হিসেবে তারা থেকে যাবেন সকলের মনে। স্বভাবতই ঐন্দ্রিলার মৃত্যুতে ভেঙে পড়েছেন সব্যসাচী। শোকে একপ্রকার যেন পাথর হয়ে গেছেন।

ঐন্দ্রিলা মারা যাওয়ার পর থেকেই তার নানান ভিডিও ঘুরপাক খাচ্ছে নেটমাধ্যমে। যেখানে দেখা যাচ্ছে যে, মৃত ঐন্দ্রিলার পায়ে চুমু খাচ্ছেন অভিনেতা। এরপর মাথার কাছে বসে কপালে চন্দনও পরিয়ে দেন। প্রিয়তমাকে শেষবার সাজানোর এমন সুযোগ কোনোভাবেই মিস করেননি তিনি। একটা ভালোবাসায় কতটা শ্রদ্ধা মিশে থাকলে সকলের মাঝে তার পায়ে চুমু খাওয়া যায় তা বোধহয় সব্যর থেকেই শেখা উচিত।