×
EntertainmentVideoViral Video

‘সকলের আয়ু যেন তোমার লাগে’, ঐন্দ্রিলাকে বলেছিলেন সৌরভ গাঙ্গুলী, পুরনো ভিডিও দেখে চোখে জল ভক্তদের

‛সবার আয়ু যেন তোমার লাগে’। ‛দাদাগিরি’ র মঞ্চে ঐন্দ্রিলার (Aindrila Sharma) জন্য এমনই বার্তা দিয়েছিলেন সৌরভ গাঙ্গুলি। আজ ঐন্দ্রিলা আমাদের মাঝে নেই। কিন্তু তার কাজ এবং হাজারও একটা ভিডিও ঘুরপাক খাচ্ছে নেটমাধ্যমে। আর যা চোখে পড়ছে সবারই। দীর্ঘ ১৯ দিনের লড়াই শেষে ২০ দিনের মাথায় না ফেরার দেশে পাড়ি দেন অভিনেত্রী। হাওড়ার একটি বেসরকারি হাসপাতালে দুপুর ১২ টা ৫৯ মিনিট নাগাদ মৃত্যু হয় তার।

২০১৫ সালে প্রথম ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়েছিলেন ঐন্দ্রিলা। তার অস্থিমজ্জায় ক্যান্সার ধরা পরে। এরপর কেমোথেরাপি চলার পর ২০১৬ সালে তিনি সুস্থ হয়ে ওঠেন। কিন্তু তারপর ৫ বছর পর ২০২১ সালে আবারও আক্রান্ত হয়েছিলেন মারণ রোগ ক্যান্সারে। অবশেষে আবারও কঠিন লড়াইয়ের মধ্যে দিয়ে গিয়ে সুস্থও হয়েছিলেন। ফিরে এসেছিলেন স্বাভাবিক জীবনে। শুরু করেছিলেন নিজের অভিনয়ের কেরিয়ার।

ADVERTISEMENT

আর তখনই হাজির হয়েছিলেন ‛দাদাগিরি’ র মঞ্চে। জানিয়েছিলেন তার লড়াইয়ের কথা। তার মনের জোরের কাছে হারতে বাধ্য হয়েছে মারণ রোগ ক্যান্সার। বলা যেতে পারে আজকের তরুণ জেনারেশনের কাছে তিনি ইন্সপিরেশন। দাদার মঞ্চেই হিন্দি গান দাদার সঙ্গে নাচতেও দেখা গিয়েছিল তাকে। জীবনযুদ্ধে তার লড়াইকে কুর্নিশ জানিয়েছেন মহারাজা। এমনকি বলেছেন ‛সবার আয়ু যেন তোমার লাগে’।

কিন্তু তারপরেও হলনা শেষ রক্ষা। ১ নভেম্বর ব্রেন স্ট্রোকে আক্রান্ত হন অভিনেত্রী। কোমায় চলে যান। তারপর থেকে তাকে রাখা হয়েছিল ভেন্টিলেশনে। হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পর থেকে কমবেশি ভালো-মন্দ অবস্থার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছিল অভিনেত্রীর শারীরিক অবস্থা। যদিও এরপরেও ধীরে ধীরে সুস্থ হওয়ার পথে এগোচ্ছিলেন ঐন্দ্রিলা। কিন্তু মাঝেমধ্যেই তার শারীরিক অবস্থা অত্যন্ত সংকটজনক হয়ে পড়ছিল।

তবে, বৃহস্পতিবার রাতে কার্যত মিরাকেল ঘটিয়ে চিকিৎসায় সাড়া দিয়েছিলেন ঐন্দ্রিলা। আর সেকথা ঐন্দ্রিলার প্রেমিক সব্যসাচী নিজেই জানিয়েছিলেন ফেসবুক পোস্টের মাধ্যমে। কিন্তু শনিবার অভিনেত্রীর শারীরিক অবস্থার আবারও অবনতি হয়। হাসপাতাল সূত্রে জানা যায় যে, শনিবার রাতে কমপক্ষে দশবার হৃদরোগে আক্রান্ত হন ঐন্দ্রিলা। আর তারপর সব্যসাচীর প্রোফাইলেও ঐন্দ্রিলাকে নিয়ে করা শারীরিক সংক্রান্ত সব পোস্ট মুছে ফেলা হয়।

এরপরই আজ দুপুরে খবর আসে ঐন্দ্রিলা আর আমাদের মধ্যে নেই। সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে এখন কেবলই ঐন্দ্রিলার হাজারও একটা স্মৃতি। তেমনই দাদার মঞ্চে দাদার সঙ্গে ঐন্দ্রিলার এই পুরোনো নাচের ভিডিও তুমুল ভাইরাল হয়েছে।