Entertainment

ক্যামেরা দেখেই ক্যাট ওয়াক শুরু ১০ বছরের আরাধ্যার! ঠিকমতো হাঁটতে পারেনা? ট্রোলের মুখে ঐশ্বর্য কন্যা

তাঁর বয়স সবে দশ, কিন্তু হামেশাই মায়ের সঙ্গে লাইমলাইটে চলে আসে বলিউডের পাওয়ারফুল দম্পতি অভিষেক বচ্চন (Abhishek Bachchan) ও ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চনের (Aishwarya Rai Bachchan) একমাত্র কন্যা আরাধ্যা বচ্চন (Aaradhya Bachchan)। আর হবে নাই বা কেন! তাঁর মা বাবা যে দুনিয়ার অন্যতম সেনসেশন, বলিউডের স্বনামধন্য অভিনেতা-অভিনেত্রী, তার পরেও বচ্চন পরিবারের প্রধান সদস্য। তাই আরাধ্যাও যে হামেশাই চর্চার কেন্দ্রবিন্দুতে থাকবে সেটাই স্বাভাবিক! কারণ ছোট থেকেই তাঁর পরিচিত হয়ে গিয়েছে ক্যামেরার ফ্ল্যাশের সঙ্গে। এবার এয়ারপোর্টে এক মজাদার কাণ্ড ঘটিয়ে ফেললেন আরাধ্যা, কিন্তু তাতেও লাভ নেই তারপরেই তিনি পড়ে গেলেন ট্রোলের মুখে। কিন্তু কেন, ঠিক কী হয়েছিল?

গত ১৬ই নভেম্বর ছিল আরাধ্যার জন্মদিন। কিন্তু তাঁর জন্মদিন শহরের কোলাহলের থেকে অনেকটাই দূরে হয়েছে, মলদ্বীপে মেয়ের জন্মদিন সেলিব্রেট করেছেন এই জনপ্রিয় দম্পতি। তবে গত সপ্তাহেই মুম্বইতে ফিরেছেন ঐশ্বরিয়া-অভিষেক। মেয়েকে কখনই কাছছাড়া করেননা ঐশ্বরিয়া(Aishwarya)। মাঝে মাঝেই পাপরিজির ভিডিওতে উঠে আসে মা-মেয়ের যুগলবন্দী। সর্বত্র মেয়ের হাত শক্ত করে ধরে রাখেন রাই সুন্দরী। ভাইরাল ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, সংবাদকর্মীদের দেখে হঠাৎই ‘ক্যাট ওয়াক’ করতে শুরু করে আরাধ্যা। আর এই ভিডিও ভাইরাল হতেই আরাধ্যার কান্ড দেখেই নেটিজেনদের একটা বড় অংশ হেসে কুপোকাত। কারণ ভিডিওয কোমর বেঁকিয়ে বেঁকিয়ে হাঁটতে দেখা গিয়েছে আরাধ্যাকে, যেন ব়্যাম্প ওয়াক করছেন তিনি।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Viral Bhayani (@viralbhayani)

আর মেয়ের এহেন হাঁটা দেখে চমকে যান ঐশ্বরিয়া নিজেও। তিনি তখন, কড়াভাবে মেয়ের দিকে তাকিয়েও মেয়ের এহেন কান্ড দেখে হাসি আর থামাতে পারেননা। তবে এই ভিডিও নিয়ে কমেন্টে নেটিজেনদের বক্তব্য, আরাধ‍্যার পায়ে কোনো সমস‍্যা রয়েছে নাকি সে নিজেই এভাবে হাঁটছে সেটা বোঝা যাচ্ছে না, ঐশ্বরিয়াই তাঁকে এভাবে হাঁটা শিখিয়েছেন। আরাধ‍্যা ঠিক ভাবে হাঁটতে পারে কিনা। নয়তো সবসময় মেয়ের হাত এভাবে কেন ধরে রাখেন ঐশ্বরিয়া? এই ধরণের প্রশ্নে ছেয়ে গিয়েছে এই ভিডিওর কমেন্টবক্স।

তবে সবাই যে বিরূপ মন্তব্য করেছেন তা কিন্তু নয়, কেউ কেউ বলেছেন, যারা আরাধ‍্যার হাঁটা নিয়ে কটাক্ষ করছেন, তারা ভুলে যাচ্ছে আরাধ্যা একজন ১০ বছরের শিশু। যখন যা ইচ্ছা তা সে করতে পারে, সুতরাং তাঁকে নিয়ে কোনও কুমন্তব্য করা উচিত নয়।

Related Articles

Back to top button